গল্পঃ পালাবদল

রাত পৌনে দুইটা বাঁজে। আদিবা চিৎ হয়ে শুয়ে আছে। চক্ষুদ্বয়ে টলমল করছে একবিন্দু জল। মাথার উপরের সিলিং ফ্যানটা ঘুরছে অনবরত। ঝুলে থাকা সিলিং ফ্যানের শু শু শব্দে ভাবনার জগতে মিলিয়েছে সে। ভাবছে, আজ তার চোখের কোণে জমে থাকা জলের বিন্দুমাত্র কারণ।
   সে তো বেশি কিছু চায়নি। অযত্নে অবহেলায় জং ধরা ভালোলাগা ভালোবাসায় সান দিতে চেয়েছে একটু, অগোছালো পরিবার গুছিয়ে নিতে চেয়েছে একটু, ভেঙে দিতে চেয়েছে যত অনিয়ম।
এতে দোষটা কোথায়?
গল্পঃ পালাবদল
গল্পঃ পালাবদল

সব মেয়েরা তো তাই চায়।
একটা দীর্ষঃশ্বাস ছেড়ে বা'হাতের পিঠ দিয়ে চোখ মুছেছে সে।  চিৎকার দিয়ে কেঁদে ফেলতে ইচ্ছে করছে। দু'হাত দিয়ে মুখ চেপে ধরেছে সে। কোনোভাবে কান্না করা যাবে না, কারন পাশের ঘরে আদিবার স্বামী মাহবুব ঘুমোচ্ছেন। কান্নার চিৎকারে ঘুম ভাঙলে আবার মার খেতে হবে হয়তো...
   আদিবা উঠে গিয়ে জানালার সামনে দাঁড়িয়েছে। ইচ্ছে করছে প্রতিদিনের মত জানালা খুলে নীরব শহরের শীতল হাওয়ায় আপন প্রাণ জুড়াতে। কিন্তু না,  আজ সে এমনটা করেনি। বরং ড্রেসিং টেবিলের সামনের চেয়ারটায় ধপাস করে বসেছে। টলমলে চোখদুটো ডুবে গেছে আয়নার কাঁচে।  আদিবা কখনও আয়নায় হাত রাখছে কখনও আবার নিজের মায়াবী মুখ খানায়।  সে বুঝি আর আগের মত নেই!
সবকিছু কেমন যেনো এলোমেলো হয়ে গেছে।
চোখের নিচটায় ছোপ ছোপ কালো দাগ দেখা যায়, তুলতুলে ফর্সা গালে আঙুলের ছাপ দেখা যায়,  গোলাপি ঠোঁটের উপরের অংশে শুকিয়ে যাওয়া রক্তের দাগ দেখা যায় স্পষ্ট...
আদিবার চোখে ভাসছে সেদিনের ইতি হয়ে যাওয়া মুহুর্ত। যেদিন মাহবুবের হাত চেপে রেখে বলেছিলো,   
      'ছেড়ে যাবেনা তো আমায়?'
মাহবুব মুচকি হেঁসে বলেছিলো,  'তুমি নামক একজন আমার এই ছোট্ট বুকের বিশাল জায়গা জুড়ে নিয়েছো যে! তোমাকে ছেড়ে যাবো কিভাবে? তুমিতো আমার হৃদয়ের স্পন্দন।'
সেদিনও আদিবার চোখের কোণে জল এসেছিলো। পরম আনন্দের জল, হৃদয় জুড়ানো সুখের জল, খুশিতে আত্মহারা হবার জল।
কিছুদিনের মধ্যে পারিবারিকভাবে তাদের বিয়েটা হয়ে যায়। বিয়ের রাতেও সে একই প্রশ্ন করেছিলো। মাহবুবের বা'হাত শক্ত করে বুকে চেপে রেখে বলেছিলো, 'ছেড়ে যাবেনা তো আমায়?'
মাহবুব মুচকি হেঁসে বলেছিলো, 'মনের মনিকোঠায় আগলে রাখবো তোমায়'।
সেদিন আদিবা কাঁদেনি বরং হেসেছিলো। পরম চাওয়া পূর্ণ হওয়ার বহিঃপ্রকাশ রেখা টেনেছিলো আদিবার দু'ঠোঁটে।
দেখতে দেখতে দু'টো বছর কেটে গেছে। পরিবর্তন হয়েছে সবকিছুর। পরিবর্তন হয়েছে মাহবুবের আচরণে। পরিবর্তন হয়েছে সকল চাওয়া-পাওয়ার, যত ইচ্ছা-অনিচ্ছার। পরিবর্তন হয়েছে অশ্রু জলের রঙের।
মাহবুব আর আগের মত নেই। আগের মতো অফিস থেকে আসার সময় হাতে করে একটা লাল গোলাপ কিংবা চকোলেট নিয়ে আসেনা,  স্পেশাল ডে'তে উইশ করেনা, অফিসের ফাঁকে ফাঁকে ফোন দিয়ে জানতে চায়না আদিবা খেয়েছে কিনা, বেলকনিতে দাঁড়িয়ে দু'জনে মিলে চাঁদ দেখাটাও ভুলে গেছে হয়তো...
   আদিবা উঠে দাঁড়িয়ে একটা দীর্ঘঃশ্বাস ছাড়লো। নিজেকে বড্ড বোকা ভাবতে শুরু করেছে সে। এতবার মাহবুবকে ছেড়ে যাওয়ার কথা জিজ্ঞেস করেছে অথচ একবার জিজ্ঞেস করেনি, বদলে যাবেনা তো তুমি?
পরিবর্তন আসবেনা তো তোমার ওই মিষ্টি হাঁসিতে?
সমাপ্ত
গল্পঃ পালাবদল
লেখকঃ Md. Yeasin

পোস্ট রেটিং করুন
ট্যাগঃ
About Author

টিউটোরিয়ালটি কেমন লেগেছে মন্তব্য করুন!