ক্ষেত যখন বড়লোকের ছেলে পর্ব - ১৮

#ক্ষেত_যখন_বড়লোকের_ছেলে
#পর্ব_১৮
#লেখকঃ Fahim_Sheikh
ক্ষেত যখন বড়লোকের ছেলে পর্ব - ১৮
ক্ষেত যখন বড়লোকের ছেলে পর্ব - ১৮

রুমের সব ঘুরে ঘুরে দেখতে লাগলাম।।হঠাৎ একটা টেবিলের দিকে চোখ গেল।।স্টাডি টেবিল তার পিছনে কিছু একটা আছে বলে মনে হচ্ছে।।।তখন সেই পিচ্ছিটা আমার কাছে আসে।।আমি তাকে জিজ্ঞাসা করলাম বাবু এই টেবিলের পিছনে কি কোনো কিছু আছে।।।

পিচ্ছিটা- না মামা।।।এখানে কিছুই নেই।।।

আমি-আহহ আচ্ছা।।।আচ্ছা চল আমি এই এলাকাটা একটু ঘুরে দেখব।। তুমি আমার সাথে যাবে।।(পিচ্চিটাকে জিজ্ঞাসা করলাম)

পিচ্ছিটা-হ্যা মামা চলো।।

আমি- আচ্ছা চল।।আর তোমার নাম কি বাবু????

পিচ্ছিটা-মামা তুমি আমার নামও ভুলে গেছ।।আমার নাম সাদিকা।।

আমি -আচ্ছা সাদিকা এখন কোথায় যাওয়া যায়।।

সাদিকা- চল পার্ক থেকে ঘুরে আসি।।।
আচ্ছা চলো।।তারপর পার্কের উদ্দেশ্যে বের হলাম।।আমার ঢাকার ছেলেদের অফিস পার্কের সাথেই।।।

পার্কে প্রবেশের সাথে সাথে মেহেদী ভাইয়ের কল।।বললেন যে দুলাভাই কল।করে জানতে চাইলেন যে আমরা কবে ফিরে যাচ্ছি।।

আমি- আমরা পরশু বলার সাথে সাথে কে।যেন মাথায় কিছু দিয়ে আঘাত করে।। তখন সাদিকা মামা বলে জোরে চিৎকার দেয়।।। যেই চিৎকার ফোনের অপর প্রান্তের মেহেদী শুনার সাথে সাথেই ছেলে পেলে নিয়ে চলে আসে।।

তারা আসার সাথে সাথে যারা আমাকে মারতে এসেছিল তারা পালিয়ে যায়।।আমার মাথা থেকে প্রচুর রক্ত বের হচ্ছিল যার ফলে আমি অজ্ঞান হইয়া যাই।।

পরে যখন জ্ঞান ফিরে দেখি নিধি আমার বুকের উপর ঘুমিয়ে আছে।।

অর্জিনাল লেখকের গল্প পড়তে #অসমাপ্ত_কাব্য_লেখক পেজে লাইক করুন।।।।

তার ঘুমন্ত চেহারা দেখতে প্রচুর মায়াবি লাগছিল।।ইচ্ছে করছিল তার মুখের উপর থেকে চুলগুলো সড়িয়ে দেই।।কিন্তু তা করার সাহস পাচ্ছি না।।

হঠাৎ করেই দেখতে পেলাম যে।নিধির ঘুম ভেঙে গেছে।।সে।নিজেকে আমার বুকে আবিষ্কার করতে দেখে লজ্জায় মুখ ঘুরিয়ে নেয়।।আর ওয়াশরুমে চলে যায় ফ্রেশ হতে।।।ফ্রেশ হয়ে এসে বলল আমাকে ফ্রেশ হয়ে নিতে আর।সে বাকীদের খবর দিচ্ছে যে আমার জ্ঞান ফিরেছে।।

আমি ফ্রেশ হতে চলে গেলাম আর নিধি ডাক্তার +বাকীদের ডাকতে গেছে।।।ফ্রেশ হয়ে এসে দেখি বাবা, মা,আপু দুলাভাই, আমার কিউট ভাগ্নি, স্মৃতি আপু,স্মৃতি আপুর জামাই,আর মাহির।।।
তখন আমি বললাম-স্মৃতি আপু তোমরা কখন এলে🤔🤔

স্মৃতি আপু-ভাই তুই ঠিক আছিস তো🤔🤔🤔

আমি-হ্যা আপু আমি ঠিক আছি।।আর এই হচ্ছে আমার বাবা,মা,আপু,দুলাভাই,আর আমার ভাগ্নি,আর ইনি হচ্ছে আমার বউ।।।বাড়ির সকলের সাথে পরিচয় করিয়ে দিলাম।।
বাড়ির সবার সাথে স্মৃতি আপু+দুলাভাই+ মাহেরকে পরিচয় করিয়ে দিলাম।।

স্মৃতি আপু-তাহলে তোমার স্মৃতি ফিরে এসেছে।।🤔🤔

আমি-হ্যা আপু।।আচ্ছা তোমাদের কে খবর দিল যে আমি হাসপাতালে🤔🤔🤔

তখনই তূশার ভাই আর মেহেদী ভাইয়ের আগমন।।
ডুকেই তারা বলতে লাগল যে তারা স্মৃতি আপুকে কল করে বলেছে।।

তারপর ডাক্তারের আগমন।। তিনি বললেন,,,,,,

ডাক্তার-আপনার মাথায় দ্বিতীয়বার গভীর আঘাত লাগার কারণে আপনার স্মৃতি ফিরেছে ঠিকই।।কিন্তু আপনার এই হ্মত সারতে কিছু সময় লাগবে।।আর সেই সময় আপনাকে সম্পূর্ণ বেড রেস্টে থাকতে হবে।।।আর তিনদিন পর আপনি বাসায় যেতে পারবেন।।তাহলে এখন রেস্ট নিন আমি আসছি।।

বলে ডাক্তার চলে গেল।।নার্স এসে বলল যে রোগীর ঘর ফাকা করুন আর যে ওনার সাথে থাকবে সে এই দিকে আসুন।। তখন নিধি সবাইকে চলে যেতে বলল আর সে থেকে গেল।। সবাই চলে গেল,যাওয়ার সময় স্মৃতি আপুকে বলেছি।আমি বাসায় না যাওয়া পর্যন্ত থেকে যেতে।।।অনেক জুরাজুরি করার পর রাজী হল।।তারপর নার্স নিধিকে আমার ঔষধ বুঝিয়ে দিয়ে চলে গেল।।

তারপর নিধি বলল,,,,,,,,,,,,,,,,

জানি আজকের পর্বটা ছোট হয়েছে।।আর একপর্বের মধ্যে
গল্পটা শেষ করে দিব।।।
আপনাদের সাড়া পেলে নেক্সট পর্ব দিব নয়তো দিব না।।

সবাই নিয়মিত নামায আদায় করুন।।।

(বিঃদ্রঃ ভুলট্রুটি ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন)
পোস্ট রেটিং করুন
ট্যাগঃ
About Author

টিউটোরিয়ালটি কেমন লেগেছে মন্তব্য করুন!