ক্ষেত যখন বড়লোকের ছেলে পর্ব - ২০

#ক্ষেত_যখন_বড়লোকের_ছেলে
#পর্ব_২০
#লেখকঃFahim_Sheikh
ক্ষেত যখন বড়লোকের ছেলে পর্ব - ২০
ক্ষেত যখন বড়লোকের ছেলে পর্ব - ২০

আমি মিটিং শেষ করে বের হয়ে দেখি আপু ১০ টা কল+বাবা ২০টা কল দিয়েছে।।।ফোন সাইলেন্ট থাকায় বুঝি নি।।

তারপর কল বেক করলাম,,,,,,, তারপর আপু যা বলল শুনে আমার মাথা কাজ করা বন্ধ করে দিল কিছুহ্মণ এর জন্য।।

আপু বলল- নিধি,,,,,,,,,,,,,,নাকি অজ্ঞান হয়ে গেছে।।।হাসপাতালে নেওয়ার পর ডাক্তার জানালেন যে অতিরিক্ত কান্না করা আর না খাওয়ার ফলে এমন হয়েছে।।।

আমি-আচ্ছা,, এখন তোমরা কই।???

আপু- হাসপাতালে।।।তুই কি আসবি???

আমি- না আপু।।আমি গেলে নিধি বুঝে ফেলবে।।।

আপু- ওকে।।।তাহলে তুই বাসায় চলে যা।।।

আমি-আচ্ছা তুই কখন আসবি???

আপু-এই কিছুক্ষণ পর।।।।

তারপর।কল কেটে বাসার উদ্দেশ্যে অফিস থেকে বের হয়ে।। মেহেদী ভাইদের কাছে চলে গেলাম।। আর বিয়ের সব আয়োজন তাদের করতে বললাম।।
আর জিজ্ঞাসা করলাম যে-যারা আমার উপরে হামলা করেছিল ওইদিন তাদের কোনো খুজ পাওয়া গেছে নি।।

মেহেদী ভাই- না এখনও পাই নি।কিন্তু খুব তাড়াতাড়ি পাব।।
তারপর তাদের সাথে কথা বলে বাসায় চলে এলাম আর বলে এলাম আগামী শুক্রবার বিয়ে সবাই যেন চলে আসে।।।

বাসায় এসে ফ্রেশ হয়ে নিলাম।।পরে।নিচে এসে দেখি সবাই চলে এসেছে।। তারপর সবার সাথে কথা বলে শুক্রবারই বিয়ের দিন ঠিক করলাম।।।আর বললাম নিধিকে বলতে যে আমি বিয়ে করতেছি।।।।বাবাকে বললাম নিধির বাবাকে কল করে বলে দিতে।।।আর এইবার যেন বড়ধরনের কোনো অনুষ্ঠান না করে।।।

তারপর বাবা নিধির বাবাকে কল করে বলে দিলেন শুক্রবার বিয়ের আয়োজন করতে।।।আজ মমঙ্গলবার আর মাত্র দুইদিন বাকী।।। তারপর সবাই মিলে আড্ডা দিতে লাগলাম।।সিয়াম, সুমন,শান্ত,জেনিয়াকেও কল করে বললাম কালকে চলে আসতে।।
অর্জিনাল লেখকের গল্প পড়তে #অসমাপ্ত_কাব্য_লেখক পেজে লাইক করুন।।।।

তারপর সবাই রাতের খাবার খেয়ে রুমে এসে ফেসবুকে একটু লেখালেখি করলাম।।আমি আবার গল্প লেখতে আর পড়তে ভালবাসি।।।
তখন আমার পেজে একটা মেসেজ আসে এইরকম মেসজ আগে আসে নি।।।

মেসেজ এই রকম ছিল যে,,,,আচ্ছা আপনার ফোন নান্বার কি পেতে পারি???

আমি-কেন??
অর্জিনাল লেখকের গল্প পড়তে #অসমাপ্ত_কাব্য_লেখক পেজে লাইক করুন।।।।

অচেনা ব্যক্তি-কিছু কথা ছিল আপনার সাথে।।।খুবই জরুরী আর আপনার কাছে সমাধান চাই।।।

আমি- আপনি আপনার নাম্বার দিন আমি কল।দিচ্ছি করছি।।।

অচেনা ব্যক্তি- ওকে।।।

তারপর একটা নাম্বার দিলমেসেজ করে,,,,,,,

দেখি এটা নিধির নাম্বার,, তাই আমি অন্য নাম্বার দিয়ে কল করলাম।।।।
রিসিভ করে ওপাশ থেকে

নিধি-আসসালামু আলাইকুম।।। লেখক সাহেব।।।। (কান্না ভেজা কণ্ঠে)

আমি-ওয়ালাইকুম সালাম।।। আলহামদুলিল্লাহ ভালো।।মনে হচ্ছে আপনার সমস্যা খুবই গুরুতর।।। (কণ্ঠ চেঞ্জ করে)

নিধি-জ্বী।।।আমি কি আপনাকে কিছু বলতে পারি???

অর্জিনাল লেখকের গল্প পড়তে #অসমাপ্ত_কাব্য_লেখক পেজে লাইক করুন।।।।

আমি- জ্বী অবশ্যই।। বলুন।।

তারপর নিধি বলা শুরু করল।।।

নিধি-আচ্ছা লেখক সাহেব বলুন তো কাউকে যদি প্রথমে ঘৃণা করে সে হ্মেত বলে তাকে স্মার্ট বানানোর জন্য।।।
পরে জানতে পারি যে সে হ্মেত হয় সে স্মার্ট বিসনেসম্যান।।।আমি তাকে প্রথম দেখাই ভালোবেসে ফেলি।।
কিন্তু যখন তা প্রকাশ করি তখন সে মনে করে যে আমি তার টাকা দেখে তাকে ভালবাসি।।।
তারপর পারিবারিক ভাবে আমাদের বিয়ে হয়।।কিন্তু বিয়ের পরের দিন কিছু কাজে তাকে বিদেশ যেতে হয়।
আর সে আমাদের সারপ্রাইজ দেবে বলে কাউকে না বলে সে বিদেশ থেকে যেদিন আসার কথা ছিল।।
তার আগেই চলে আসে।।।সেদিন তার একটা এক্সিডেন্ট হয় যা আমরা জানতাম না।।।পরে তাকে অনেক খুজা হয়া কিন্তু পাওয়া যায় নি।।
জানেন সেদিন আমার খুব কষ্ট হয়েছিল তাকে হারানোর ভয়ে।।।

সেদিন থেকে কোনোদিন বাদ যায় নি যে তার জন্য কান্না করি নি।।।

যেদিন তাকে খুজে পাওয়া যায়।।সেদিন খুব খুশি হয়েছিলাম।তাকে দেখতে পেছিলাম বলে।।কিন্তু পরে জানতে পারি যে তার স্মৃতি হারিয়ে গেছে।।।

তারপর একদিন সে তার ভাগ্নি কে নিয়ে ঘুরতে যায় আর সেখানে তার উপর হামলা হয়।।।মাথায় আবার আঘাত পাওয়ার ফলে।স্মৃতি ফিরে আসে।।।(বাকীটা বলব না,,,কারণ- বাকীটা আপনারা জানেন)

আমি-আচ্ছা আপনি এইসব কথা আমাকে কেন বললেন???

নিধি- কারণ- আজকের পর হারিয়ে যাব না ফেরার দেশে।।তাই এই নিয়ে যেন একটা গল্প লিখেন তাই আপনাকে বললাম।। হয়তো কালকে আর সুর্য দেখা হবে না।।

অর্জিনাল লেখকের গল্প পড়তে #অসমাপ্ত_কাব্য_লেখক পেজে লাইক করুন।।।।

আমি- কি সব আবোল তাবোল বলছেন।।। সুইসাইড করা যে পাপ তা কি জানেন না???

নিধি- জানি,,,আচ্ছা লেখক সাহেব বিদায় নিচ্ছি।। আমার সময় মনে হয় শেষ হয়ে এসেছে।।। তাই বিদায় নিতে হচ্ছে।। জানি আর কখনো কথা হবে না আপনার সাথে।।।প্লিজ এই গল্পটা লেখবেন আমাকে কথা দিন।।।

আমি যেন কথা বলার শক্তি হারিয়ে ফেলেছি।।।কিছুই মুখ দিয়ে বের হচ্ছে না।।।

হঠাৎ দেখি নিধি আর কথা বলছে না.. লাইনে আছে কিন্তু কথা বলছে না।। তারপর নিধি বলে একটা চিৎকার দিলাম।।।

আমার চিৎকার শুনে সবাই আমার ঘরে চলে এসেছে।।এসে আপু এসে জিজ্ঞাসা করতাছে কি হয়েছে।। আমি বললাম নিধি সুইসাইড করতে যাচ্ছে।। আমাকে এখনই যেতে হবে।।

বলে তাড়াহুড়া করে বেড়িয়ে পড়লাম।। রাশ ড্রাইভিং করে নিধিদের বাসায় পৌছালাম।।। কলিংবেল দেওয়ার অনেহ্মণ পর নিধির বাবা এসে দরজা খুলে দিলেন।।আমকে চিন্তিত দেখে বললেন কি হয়েছে বাবা এতো রাতে আমাদের বাসায়।।। কোনো সমস্যা হয়েছে নাকি।।।

আমি- আংকেল নিধি কোথায়???

আংকেল-নিধি তো উপরে কেন কি হয়েছে।।।

আমি তাড়াতাড়ি নিধির রুমে গেলাম।। গিয়ে দেখি দরজা বন্ধ।।অনেকবার ডাকলাম কিন্তু কোনো সাড়া শব্দ পাচ্ছি না।।
তাই বাধ্য হয়ে দরজা ভাঙতে হল।।ডুকে দেখি মহারাণী মহানান্দে গান শুনতেছে খাটে শুয়ে শুয়ে।।।

তখন মাথা প্রচুর গরম হয়ে গিয়েছিল এটা দেখে।।। গিয়া এক টানে খাট থেকে উঠালাম আর দিলাম👋👋👋👋

নিধি অবাক দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছে শুধু।।।

তারপর আমি বলা শুরু করলাম,,,,,,,,,,

আপনাদের সাড়া পেলে নেক্সট পর্ব দিব নয়তো দিব না।।

সবাই নিয়মিত নামায আদায় করুন।।।

(বিঃদ্রঃ ভুলট্রুটি ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন)

আজকেও শেষ করতে পারলাম না,,, জানি না আর কত পর্ব লেখতে হইব।।।
পোস্ট রেটিং করুন
ট্যাগঃ
About Author

টিউটোরিয়ালটি কেমন লেগেছে মন্তব্য করুন!