Romantic - বাসর রাতের গল্পকথা

বাসর রাতের গল্পকথা

বাসর রাতের গল্পকথা

বাসর রাতের গল্পকথা




আজ আমি আমার জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বাসর রাতের গল্পকথা আপনাদের কাছে শেয়ার করবো।

বাসর রাতে ঢুকে দেখি আমার লক্ষী বউটা ঘোমটা দিয়ে বসে আছে। আমিতো মহা খুশি। কারণ দীর্ঘ আট বছর প্রেম করার পরে আমাদের ভালোবাসা সাকসেস হয়েছে।

 এই বাসর রাত নিয়ে যে আমার কত স্বপ্ন তা বলে বোঝানো যাবে না। সেই স্বপ্ন বুকে নিয়ে বউয়ের পাশে খাটে বসলাম, একটু ভাব নিয়ে বললাম।

আমি: কিগো মহারানী আপনি না আমার জীবন তেজপাতা বানাবেন?? এখনতো দেখছি লজ্জায় লজ্জাবতীর মত নতুন বউ হয়ে বসে আছেন??

আমার কথা বলা শেষ না হতেই আমার শেরওয়ানির কলার টা ধরে বিছানায় শুইয়ে দিয়ে নীলিমা আমার উপরে চড়ে বসলো। কিছু বুঝে উঠার আগেই আমার ঠোঁটে কামড় বসিয়ে দিল। অমনি আমার ঠোঁট ফেটে রক্ত বের হয়ে ওর ঠোঁট লাল করে দিল।

আমি ঠোঁট ফাটাতে কষ্টও পাচ্ছি আবার ওর কান্ড দেখে অবাকও হচ্ছি। ওর কিভাবে এতটা সাহসী হল আমার মাথায় ঢুকছেনা? কষ্ট ও অবাক এর মাঝামাঝি দাঁড়িয়ে জিজ্ঞেস করলাম.

আমি: বউ কি করলা তুমি এটা ??

নীলিমা: তোরে রেপ করলাম, বুঝিস নাই?

আমি: এটা কেমন রেপ?? আর তুমি তুই তুকারি করছো কেন সোনা বউ?

নীলিমা: আমি বাংলা ছবিতে দেখেছি ভিলেনরা নায়িকাকে এভাবে রেপ করে, আর এই যে 8 বছরে আমাকে যে ভয় দেখিয়েছিস তার ঝাল সারা জীবন তোর ভোগ করতে হবে, তাই আমার যখন যেটা ইচ্ছা করবে সেটা করব, তুই কিছু করতে পারবি না । চেয়ে চেয়ে দেখবি হুহ!!

আমি নীলিমার কথা শুনে হাসবো নাকি কাঁদবো বুঝতেছিনা। ঠোঁট কামড়িয়ে কাউকে রেপ করে আজকে প্রথম জানলাম ওর মুখ থেকে। এত কিছু করার পরেও নীলিমা আমার বুকের উপর বসেই আছে। অসহায় অবস্থায় নিচ থেকে করুন কণ্ঠে বললা।

আমি: কেন সোনা বউ আমি কি করেছি তোমার সাথে?? নীলিমা: ও এখন তো মনে থাকবেই না, কয়টা মেয়ের সাথে লাইন মারিস যে আমার সাথে কি হইছে না হইছে এটা মনে থাকেনা?

আমি: নাউজুবিল্লাহ….. এসব কি বলছ বউ?

এই যে তোমার পেটে হাত দিয়ে বলতেছি ,তোমার পেটে থাকা আমার বাচ্চার কসম ,তুমি ছাড়া আমার জীবনে অন্য কোন মেয়ে নেই।

নীলিমা: এই চুপ একদম চুপ, তোর সাথে কিছু হয়নি আমার এখনো, তোর বাচ্চা আমার পেটে কিভাবে আসবে হুহ ?? তার মানে তুই মিথ্যা বলছিস।

আমি: আস্তাগফিরুল্লাহ…. না না বউ তুমিই আমার প্রথম তুমিই আমার শেষ।

নীলিমা: হ্যাঁ এই কথাটাকে তাবিজ বানাইয়া গলায় যুলিয়ে রাখবি, যাতে কখনো না ভুলিস। আর হ্যাঁ যদি আমি ছাড়া অন্য কোন মেয়ের দিকে তাকাইছিস তুই শেষ। আর তোর দিকে যে মাইয়া তাকাইব সেও শেষ।

আমি: আচ্ছা ঠিক আছে তা বুঝলাম, কিন্তু আমার দোষটা কি সেটা তো বল?

নীলিমা: ওকে ফ্ল্যাশব্যাকে চল….. আমার এক কাজিনের বিয়ের দিন…. নীলিমাকে ওর রুমে একা পেয়ে ওর দিকে কামুকী দৃষ্টিতে আগাতে থাকলাম আর ও পিছাতে লাগলো, এক পর্যায়ে ওর পিঠ দেয়ালের সাথে মিলে গেল। আর পিছাতে না পেরে ওর ওড়না ঠিক করতে লাগল।

নীলিমা– প্লিজ অর্ণব আমাকে ছেড়ে দাও।

আমি– এতদিন পর তোকে কাছে পেয়েছি, তোকে কি ছেড়ে দেওয়ার জন্য..??(বজ্জাত মার্কা হাসি দিয়ে)

নীলিমা– প্লিজ অর্ণব আমার এত বড় সর্বনাশ করবে না।(কাকুতি মিনতি করে)

আমি– ওকে ছেড়ে দিব একটা শর্ত আছে, মানবি?

নীলিমা– কিক্কক্কক্কক্কি শসসসসর্ত..??(তুতলিয়ে)

আমি– তুই সেচ্ছায় আমার বিছানায় আসবি, মজা তুইও পাবি আমিও পাবো।(হিহিহি)

নীলিমা– এএএএসব কি বলছ অর্ণব?? আমাদের এখনো বিয়ে হয় নাই।

আমি– এই চুপ, একদম চুপ, তোরে এই কথাটা কইতে না করছি না..?? এই বলেই ওর ঠোটে আমি আমার হাত ছুয়ে দিলাম।কেমন যেন ওর সারা শরীরে কারেন্টে শক লাগার মত কেপে উঠলো। এরপর আস্তে আস্তে আমার ঠোঁট দুটি ওর ঠোঁটের কাছে নিতে লাগলাম , নীলিমার চোখ দুটো বন্ধ করে ফেলল, আর নিঃশ্বাস ভারী হয়ে আসতে লাগলো।

কেমন যেন ওর সারা শরীর খিচুনি উঠার মত কাঁপতেছিল ।আমি পরিস্থিতি বেগতিক দেখে সাথে সাথে ওকে ছেড়ে দিয়ে প্রস্থান করলাম। হঠাৎ নীলিমার হাতের আঘাতে ফ্ল্যাশব্যাক থেকে ফিরে আসলাম।

নীলিমা: কি সব মনে পড়ছে?? আমি: আমার সোনা বউটা রাগ করছে বুঝি?? তখন তো তোমার লজ্জাবতী মুখখানা দেখার জন্য এমনটা করতাম!

নীলিমা: হ্যাঁ এখন এই লজ্জাবতী মুখ তোর জীবনটা তেজপাতা বানায় ছাড়বে!! আমি: আল্লাহ,,!!, তোমার মনে কি মায়া দয়া কিছু নাই বউ?

নীলিমা: ইস আমার জামাইটার ঠোঁট ফেটে গেছে, না থাক সোনা কিছু হবে না। (আমার উপর থেকে নেমে ঠোঁটে আলতো ছুঁয়ে দিয়ে বললো) ওমা মুহুর্তের মধ্যে সবকিছু পরিবর্তন..!! হাউ ইজ পসিবল?

আমিতো নীলিমার কাণ্ডকারখানা দেখে যারপরনাই আশ্চর্য হলাম। আমি শেরওয়ানি টা খুলে রাখতে যাব তখন নীলিমা বলল।

নীলিমা: কি করছো অর্ণব..?

আমি: ঘুমাতে হবে না?

নীলিমা: আজকে রাতে কোন ঘুম নেই।

আমি: অ্যা নীলিমা: অ্যা না হ্যাঁ।

আমি: আল্লাহ আমার ভাগ্যে কি এমন ডেঞ্জারাস মেয়ে ছাড়া শান্ত একটা মেয়ে দিতে পারলে না…??(বিড়বিড় করে বললাম)


Tags:- বাসর রাতের গল্পকথা,ভয়ংকর বাসর রাত গল্পের সব,Romantic Story : বাসর রাত,বাসর রাত,অন্ধকার বাসর রাত,একটি বাসর ঘরের গল্প,বাসর রাত বাসর রাতের রোমান্টিক,রোমান্টিক বাসর রাত,বাসর রাতের রোমান্টিক গল্প,গল্প:"রোমান্টিক বাসর রাতের গল্প,আদর্শ বাসর রাত কিভাবে করবেন,বাসর রাত - Valobasar Golpo,বাসর ঘরে জরিমানা – রোমান্টিক গল্প
পোস্ট রেটিং করুন
ট্যাগঃ
About Author

টিউটোরিয়ালটি কেমন লেগেছে মন্তব্য করুন!