মূর্তি কি ? কেন হিন্দুরা মূর্তিপূজা করে ?

মূর্তি কি ? কেন হিন্দুরা মূর্তিপূজা করে ?

হিন্দুরা নিজ হাতে নিজেদের ভগবান/মূর্তি বানিয়ে পূজা করে আবার পানিতে ফেলে দেয়!
মূর্তির সামনে খাবার দিলে তা খেতে পারে না!
মূর্তি কি ? কেন হিন্দুরা মূর্তিপূজা করে ?
মূর্তি কি ? কেন হিন্দুরা মূর্তিপূজা করে ?


মূর্তি নিজেই নিজেকে রক্ষা করতে পারেনা,আবার হিন্দুদের রক্ষা করবে কি????"
বিধর্মীদের থেকে এমন প্রশ্ন প্রায়ই হিন্দুরা শুনে থাকে।কিছু ক্ষেত্রে উত্তর দিতে পারলেও অধিকাংশ হিন্দুরা ধর্মীয় অজ্ঞতার কারণে উত্তর দিতে ব্যর্থ হয়!

আসুন উত্তর জানি,
মূর্তি ভগবান না!!!!!!! এটি কাঠ,মাটি দিয়ে তৈরী একটা উদাহরণ মাত্র!!
তাই,মূর্তি খায় না,মূর্তিতে মশা মাছি বসতে পারে,মূর্তি ভেঙ্গে অনেক মূর্খ ভাবে হিন্দুদের সৃষ্টিকর্তাকে ভেঙেছি।

মূর্তি হিন্দুদের সৃষ্টিকর্তাও না!!!!!!
তাই, মূর্তিকে হিন্দুরা নিজ হাতে বানায়!
তবে মূর্তি কি??কেন হিন্দুরা মূর্তিপূজা করে??

মূর্তি হলো সর্বশক্তিমান ঈশ্বরের অসংখ্য রূপের একটি রূপক মাত্র,যেটা কেবলমাত্র একটা চিহ্ন।যেটার মাধ্যমের ঈশ্বরের প্রতি ভক্তি প্রকাশ করা হয় মাত্র।ভক্তের ঈশ্বরের প্রতি ভক্তি প্রকাশের একটা মাধ্যম।

হিন্দু শাস্ত্র মতে ঈশ্বরের নিরাকার, সাকার দুই রূপেই বিরাজিত।ঈশ্বরের সাকার রূপ হলো দেবদেবী আর নিরাকার রূপ হলো আকৃতিবিহীন।বর্তমান যুগে আমাদের অশান্ত মনকে শান্ত করতে একটা মাধ্যম প্রয়োজন হয়,তাই মূর্তিকে মাধ্যম হিসেবে ধরলে ঈশ্বর আরাধনা সহজ হয়।

যেমন,ক্লাসে সমগ্র বিশ্বকে বুঝাতে ম্যাপ বা গ্লোব ব্যবহার হয়।এতে ছাত্রছাত্রীরা সহজে বিশ্ব সম্পর্কে জানতে পারে।

ঠিক তেমনি মূর্তির মাধ্যমে ঈশ্বরের রূপকে সহজে বুঝানো হয়।
এখন যদি কেউ গ্লোব,ম্যাপকেই সমগ্র বিশ্ব মনে করে আর গ্লোব ভেঙ্গে,ম্যাপ ছিড়ে যদি বলে বিশ্ব ধ্বংস করলাম, তবে তাকে মহামূর্খ, পাগল ছাড়া আর কি বলবেন????
মূর্তি যদি ভগবান বা সৃষ্টিকর্তা না হয় তবে হিন্দুরা এর সামনে খাবার কেন দেয়?? মূর্তি ভাঙ্গলে রাগ করে কেন??

মূর্তির সামনে খাবার দেয়ার মাধ্যমে ভগবানের প্রতি শ্রদ্ধা প্রকাশ করা হয়।
এখন আপনার মা বাবার ছবি ভালোবেসে যেমন আপনি যত্ন অ্যালবামে ভরে রাখেন ঠিক তেমন।
আর আপনার বাবা মায়ের ছবি কেউ ছিড়লে, পা দিয়ে মাড়ালে আপনার যেমন কষ্ট হয়।তেমনি কারো শ্রদ্ধার জিনিস নষ্ট করলে তারও কষ্ট হয়।তাই মূর্তি ভাঙ্গলে হিন্দুরা রাগে।

আসুন,জাহান্নামের বা নরকের ভয় আর জান্নাতের বা স্বর্গের লোভ থেকে বের হই।
ভগবানের প্রতি সমর্পিত হয়ে ভগবানকে ভালোবাসি।
জয় সত্য,শান্তি,সুন্দর সনাতন।

জয় রাধে গোবিন্দ
পোস্ট রেটিং করুন
ট্যাগঃ
About Author

টিউটোরিয়ালটি কেমন লেগেছে মন্তব্য করুন!